মাসিক আল বাইয়্যিনাত

বাতিলে আতংক হক্বের অতন্দ্র প্রহরী উলামায়ে ছূ’দের মুখোশ উম্মোচনকারী..........

মাসিক আল বাইয়্যিনাত

মাসিক আল বাইয়্যিনাত এটি একটি মাসিক পত্রিকা। এ পত্রিকাটি বর্তমান পঞ্চদশ হিজরী শতকের মহান মুজাদ্দিদ মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদুর রসূল, ইমাম ঢাকা রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার পৃষ্ঠপোষকতায় প্রকাশিত ও পরিচালিত। এটি উনার তাজদীদী মুখপত্র। পত্রিকাটির মূল নাম “আল বাইয়্যিনাত”। আরবী ভাষায় ‘আল’ শব্দটি নির্দিষ্ট ব্যক্তি বা বস্তুকে বুঝানোর জন্য ব্যবহৃত হয়ে থাকে। আর ‘বাইয়্যিনাত’ শব্দটি ‘বাইয়্যিনাহ’ শব্দের বহুবচন। অর্থ: অকাট্য, স্পষ্ট, উজ্জ্বল, প্রকাশ্য, প্রামাণ্য দলীলসমূহ। পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ‘বাইয়িনাত’ শব্দ মুবারক এসেছে সতেরবার এবং সরাসরি ‘আল বাইয়্যিনাত’ শব্দ মুবারক এসেছে পঁয়ত্রিশবার। অর্থাৎ ‘বাইয়্যিনাত’ শব্দ মুবারক মোট বায়ান্নবার এসেছে। উল্লেখ্য, পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ যেমনিভাবে মুত্তাক্বী বান্দাদের জন্য হিদায়েত দানকারী, তদ্রƒপ যামানার তাজদীদী মুখপত্র মাসিক আল বাইয়্যিনাত শরীফও হিদায়েত দানকারী। আরো উল্লেখ্য, পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র হাদীছ শরীফ হচ্ছে সম্মানিত ইসলামী শরীয়ত উনার যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় উছূল বা মূলনীতি এবং তৃতীয় ও চতুর্থ মূলনীতি হচ্ছে ইজমা ও ক্বিয়াস। এই শেষোক্ত মূলনীতি দুটিরই সম্মিলিত ও সমন্বিত সংগ্রহ হচ্ছে আল বাইয়্যিনাত। মোটকথা, পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ উনাদের প্রকৃত ব্যাখ্যা, মর্মবাণী মানুষের হিদায়েতকল্পে বাংলা ভাষায় অত্যন্ত সাবলীলভাবে যে লিখনীর মাধ্যমে পত্রস্থ করা হয় বা প্রকাশ করা হয় তার নামই হচ্ছে মাসিক আল বাইয়্যিনাত।

al-baiyinaat.net

img