আনজুমানে আল বাইয়িনাত

..........

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, এখন ফিকিরের বিষয় হচ্ছে, হযরত আবুল বাশার আদম ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার আগমন ও বিছাল শরীফ উনার শান মুবারক প্রকাশের দিন হওয়ার কারণে পবিত্র জুময়ার দিন যদি পবিত্র ঈদ উনার দিন হয় এবং তা পবিত্র ঈদুল ফিতর ও পবিত্র ঈদুল আযহা উনাদের দিন থেকেও সম্মানিত ও শ্রেষ্ঠ হয় পাশাপাশি খাঞ্চা নাযিলের কারণে খাঞ্চা নাযিলের দিনটি যদি হযরত রহুল্লাহ আলাইহিস সালাম এবং উনার উম্মতের জন্য ঈদ বা খুশির দিন হয় এবং সে দিনকে খুশির দিন হিসেবে পালন না করলে কঠিন শাস্তির যোগ্য হতে হয়; তাহলে যিনি সৃষ্টি না হলে স্বয়ং মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার রুবূবিয়াত মুবারকও প্রকাশ করতেন না, সেই হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি যেই দিন যে তারিখে এই দুনিয়ার যমীনে তাশরীফ মুবারক আনলেন, সেই পবিত্র ১২ই রবীউল আউওয়াল শরীফ উনার দিন অন্যান্য ঈদের চেয়ে কত শ্রেষ্ঠ হবে এবং তা সমস্ত মাখলুকাতের জন্য পালন করা যে ফরয তা বলার অপেক্ষাই রাখে না। বরং তা পালন না করলে কঠিন শাস্তিতে গ্রেফতার হতে হবে। সুতরাং আনজুমান আমীলগণের দায়িত্ব-কর্তব্য হলো, এই বিশেষ মর্যাদাপূর্ণ অনন্তকালব্যাপী জারীকৃত পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার যথাযথ খিদমত মুবারক উনার আনজাম দেয়া এবং পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার ব্যাপক প্রচার প্রসারের উদ্যোগ নেয়া।

img